,

 



সংবাদ শিরোনাম:
«» মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে ছাত্রলীগ নেতার ভালোবাসার ফুল | টাইমস অব চট্টগ্রাম «» চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের উদ্যোগে বাঁশখালীতে শীতবস্ত্র বিতরণ||টাইমস অব চট্টগ্রাম «» জননেতা সাদেক চৌধুরী ছিলেন উচ্চ চিন্তার রাজনীতিবীদ–এম এ সালাম ||টাইমস অব চট্টগ্রাম «» হযরত ছিদ্দিক-এ আকবর (রদ্বি.) আল কোরআন একাডেমীর ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন «» দিনাজপুরে “উৎসাহ সামাজিক সংগঠন” এর কম্বল বিতরণ | টাইমস অব চট্টগ্রাম «» বাঁশখালী বাণীগ্রামস্হ ‘বন্ধন ক্লাব’ এর কার্যনির্বাহী পরিষদ কমিটি গঠিত | টাইমস অব চট্টগ্রাম «» সুবিধা বঞ্চিত শীতার্ত পরিবারের পাশে বাঁশখালী ব্লাড ব্যাংক | টাইমস অব চট্টগ্রাম «» মহাপুরুষগণ জাতি ও সমাজকল্যাণে কাজ করে গেছেন–এম এ সালাম ||টাইমস অব চট্টগ্রাম «» আসুন সকলে মিলে দুস্থ শীতার্তদের পাশে দাাঁড়াই –এম এ সালাম||টাইমস অব চট্টগ্রাম «» মহানগর গোয়েন্দা (বন্দর) অভিযানে সাত চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার | টাইমস অব চট্টগ্রাম

কর্ণফুলী নদীতে ডুবে গিয়ে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু|||টাইমস অব চট্টগ্রাম

এবিএম ইকবাল হায়দারঃ  

চট্টগ্রাম মহানগরের সদরঘাট থানা এলাকায় কর্ণফুলী নদীতে পড়ে যাওয়া জুতা উদ্ধার করতে গিয়ে দুই শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃত দুইজন হলেন ফিরিঙ্গিবাজার আলকরণ এলাকার দোলন দাশের ছেলে জয়ন্ত দাশ (১৬) ও একই এলাকার বন্দনা দাশের ছেলে অঙ্কন দাশ (১৫)। নিহত জয়ন্ত দাশ আলকরণ স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র।
তার গ্রামের বাড়ি পটিয়া উপজেলার বারইপাড়া এলাকায়। আর অঙ্কন দাশ জে এম সেন স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র। তার গ্রামের বাড়ি বোয়ালখালীর সর্ত্তাতলী এলাকায়।

জানা যায়, তারা পাঁচ বন্ধু মিলে নেভাল টুতে বেড়াতে যায়।এক বন্ধুর জুতা নদীর পানিতে পড়ে যাওয়ায় জয়ন্ত ওই জুতা উদ্ধার করতে নামেন। তখন জয়ন্তকে ডুবে যেতে দেখে অঙ্কণও ঝাঁপিয়ে পড়ে। সেখানে তারা দুজনই ডুবে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

আগ্রাবাদ ফায়ার স্টেশনের স্টেশন অফিসার মো. জাহিদ চৌধুরী টাইমস অব চট্টগ্রামকে বলেন, ‘কর্ণফুলী নদীতে একজনের জুতা উদ্ধার করতে গিয়ে দুইজন শিক্ষার্থী ডুবে যায়।খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এক ঘণ্টার চেষ্টায় দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে। পরে তাদের চমেক হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *